এবার সমুদ্রের ধারে ইত্যাদি

এবার সমুদ্রের ধারে ইত্যাদি

বিনোদন ডেস্ক :  জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদির এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায়। সাগরের কোলে গড়ে ওঠা নান্দনিক স্থাপত্য বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠানটি ধারণ করা হয়েছে। এটি ২৯ জানুয়ারি শুক্রবার রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচার হবে বলে ফাগুন অডিও ভিশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অনুষ্ঠানটি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। একই চ্যানেলে পুনঃপ্রচার হবে ৪ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টা ৪০ মিনিটে।

ইত্যাদির এ পর্বে গান রয়েছে দুটি। নৌবাহিনীকে নিয়ে রচিত একটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন বাংলাদেশ নৌবাহিনী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শতাধিক শিক্ষার্থী। গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন নৌসদস্য সৌরভ, মেহেদী, পিয়াল ও আনুভা। নৃত্য পরিচালনা করেছেন মনিরুল ইসলাম মুকুল ও মামুন। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার গৌরব নিয়ে আরেকটি দেশের গান গেয়েছেন চট্টগ্রামেরই সন্তান জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী রবি চৌধুরী, আর নৌসদস্য লেফটেন্যান্ট সাদিয়া।
দুটি গানেরই কথা লিখেছেন গীতিকবি মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, সুর করেছেন হানিফ সংকেত ও সংগীতায়োজন করেছেন মেহেদী।

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, এবারের পর্বে বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও নেভাল একাডেমির ইতিহাস-ঐতিহ্যের ওপর দুটি তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন রয়েছে।

গুড় তৈরি, এর মান ও বিক্রির ওপর রয়েছে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন।

ঝরে পড়া শিশুদের নেশা থেকে বাঁচিয়ে জীবনের দিশা দেয়ার জন্য একটি নৈতিক স্কুল খুলেছেন মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক গাজী সালেহ উদ্দিন। তার উপর রয়েছে একটি শিক্ষামূলক প্রতিবেদন। গুড় একটি অত্যন্ত প্রাচীন মিষ্টি জাতীয় খাদ্য এবং বাঙালি সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। সেই গুড় তৈরি, গুড়ের মান ও বিক্রির ওপর রয়েছে একটি প্রতিবেদন। 

চুয়াডাঙ্গা জেলার ট্রাফিক পুলিশ সার্জেন্ট মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বাসের অনন্য পাখী প্রেমের ওপর রয়েছে প্রতিবেদন। পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার হাসান পারভেজ ও তার হাতে লেখা পত্রিকার উপর রয়েছে প্রতিবেদন। রয়েছে ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার মহেশ্বরচাঁদা গ্রামের হেলালউদ্দিনের বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডের ওপর প্রতিবেদন। এবারের পর্বে রয়েছে এথেন্সের আগোরার ওপর একটি তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন। দর্শকপর্বের নিয়ম অনুযায়ী প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে উপস্থিত দর্শকের মাঝখান থেকে ৪ জন দর্শক নির্বাচন করা হয়। 

২য় পর্বে নির্বাচিত দর্শকরা নাট্যাংশে অভিনয় করেন। নিয়মিত পর্বসহ এবারও রয়েছে বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশকিছু সরস অথচ তীক্ষ্ণ নাট্যাংশ। বরাবরের মতো এবারও ইত্যাদি’র শিল্প নির্দেশনা ও মঞ্চ পরিকল্পনায় ছিলেন মুকিমুল আনোয়ার মুকিম। পরিচালকের সহকারী হিসেবে ছিলেন যথারীতি রানা ও মামুন।  

ইত্যাদি’র এই পর্বটি একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে আগামী ২৯শে জানুয়ারি, শুক্রবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে। পুনঃপ্রচার হবে ৪ঠা ফেব্রুয়ারি রাত ৮টা ৪০ মিনিটে। ইত্যাদি’র রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। ‘ইত্যাদি’ স্পন্সর করেছে যথারীতি কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড।

সিলেট প্রতিদিন /টিআই