এরাল বিলের সৌন্দর্য রক্ষা ও পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার দাবিতে স্মারকলিপি

এরাল বিলের সৌন্দর্য রক্ষা ও পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার দাবিতে স্মারকলিপি

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি :: গোলাপগঞ্জে এরাল বিলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য রক্ষা ও পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার দাবীতে গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্মারকলিপি প্রধান করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ গোলাম কবিরের নিকট এ স্মারকলিপি প্রদান করেন তারা। স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, আমুড়া ইউনিয়নের আমনিয়া, ইসলামটুল উত্তরপাড়া, সুন্দিশাইল সহ কিছু গ্রাম ও গোলাপগঞ্জ পৌরসভার সীমানা ঘেঁষা কিছু এলাকা নিয়ে এরাল বিলের অবস্থান। এরাল বিলে জাতীয় ফুল শাপলার সৌন্দর্য যে কোন প্রকৃতিপ্রেমী পর্যটকের মন আকৃষ্ট করে। বিলের মধ্যে খানে টিলা, চার পাশে বিস্তৃন্ন জলরাশি প্রাকৃতির অসম্ভব সৌন্দর্য প্রকাশ করে। এরাল বিল অতিথি পাখির অভয়ারন্যে পরিনত হয়েছে। এখানে লাল শাপলা দেখতে প্রতিদিন পর্যটক আনাঘোনা লেগে থাকে। এরাল বিলে পর্যটন শিল্পের অপার সম্ভাবনা  রয়েছে। এই এলাকাকে পর্যটন এলাকার রূপান্তরিত করলে এখান থেকে দেশ, জাতী ও এলাকাবাসী উপকৃতহবে। স্মারকলিপি আরো উল্লেখ করা হয়, সম্প্রতিকালে কতিপয় দুস্কৃতকারী এরাল বিলের শাপলা গাছ কেটে ফুল বিনষ্ট করছে। পাশাপাশি এক দল দুষ্কৃতকারী পাখি শিকার করছে। এলাকাবাসী এরাল বিলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য রক্ষায় ব্যবস্থা গ্রহণে দাবি জানান।  
 
স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন আমুড়া ইউপি'র চেয়ারম্যান রুহেল আহমদ, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও স্মৃতি পাঠাগার গোলাপগঞ্জ উপজেলা সভাপতি আবু সুফিয়ান আজম, উপজেলা যুবলীগ নেতা রাহী আহমদ, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও স্মৃতি পাঠাগার গোলাপগঞ্জ উপজেলা শাখার সহ সভাপতি রাহাদ আহমদ, বাবুল আহমদ, বুরহান উদ্দিন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মিছলু উদ্দিন, আজিজুর রহমান, ফারহান মাহমুদ আফসর, রমজান আলী, আজির উদ্দিন বাবু, বাছিত আহমদ, আবুল হাসান হাসন, সৈয়দ সাদী, নাইম আহমদ, রায়হান আহমদ, ইমাম উদ্দিন, আব্দুল মুকিত প্রমুখ।

এসএএম