কারচুপি না হলে বিজয় নিশ্চিত - গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন

কারচুপি না হলে বিজয় নিশ্চিত - গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন

সাকিব আল মামুন::

“আগামী ৩০জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে গোলাপগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন। নির্বাচনে মেয়র পদে ৪জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। তাদের নির্বাচনী ভাবনা পাঠকের কাছে তুলে ধরতে ৪প্রার্থীর মুখোমুখি হয় “সিলেট প্রতিদিন”। আলাপচারিতায় প্রতিবেদকের কাছে মেয়র প্রার্থীরা তুলে ধরেন নির্বাচনী চিন্তা-চেতনা। ৪থ পর্বে থাকছে গোলাপগঞ্জ পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন এর নির্বাচনী ভাবনা। নির্বাচনে তিনি ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

(৪)

গোলাপগঞ্জ পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন বলেছেন ২০২১সালের ৩০জানুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে জনগণ নিরপেক্ষভাবে ভোট প্রয়োগ করতে পারলে বিজয় নিয়ে ঘরে ফিরবেন বলে তিনি আশাবাদী। পৌর নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী হিসেবে একক প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহীন।

তিনি বলেন নির্বাচনে কোন প্রকার কারচুপি না হলে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত। বিজয় নিশ্চিত করতে দলের সকলকে সোচ্চার হয়ে একযোগে কাজ করার আহবান জানান।

গোলাপগঞ্জ পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন বলেন, দলমতের উর্ধ্বে উঠে একটিবারের মত তাকে নির্বাচিত করার জন্য। নির্বাচিত হলে তার দেওয়া প্রতিশ্রুতি তিনি অক্ষরে অক্ষরে পালন করবেন বলে জানান।

তিনি বলেন পৌরসভার নাগরিকবৃন্দ প্রথম শ্রেণির নাগরিকের মর্যাদা দিতে সকল প্রকার নাগরিক সুবিধা জনগণের দোর গোড়ায় পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা করবেন। পৌরসভায় কোন প্রকার বৈষম্য থাকবে না বলে তিনি নিশ্চিত করে বলেন বিগত দিনে জনগণ যে বৈষম্যের শিকার হয়েছেন, তার কাছে সে বৈষম্য থাকবে না বলেও নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন আমার অঙ্গীকার জনগনের সেবা করার অঙ্গীকার। সেই লক্ষ্য নিয়ে আগামী ৩০জানুয়ারী নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে জনগণের পাশে থাকতে চান বলে জানান তিনি।

গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন রনকেলী দীগিরপাড় গ্রমের বাসিন্দা। গোলাপগঞ্জ পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। পৌর নির্বাচনে তিনি চতুর্থ বার অংশগ্রহণ করছেন। এর মধ্যে দলীয় প্রতীক নিয়ে দুইবার, একবার স্বতন্ত্র ও প্রথমবার দলীয় কোন না থাকায় সাধারণ প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে সামান্য ভোটের জন্য প্রতিবার নির্বাচিত হতে পারেননি। তবে এবার বিজয়ের ব্যাপারে তিনি শতভাগ আশাবাদী বলে জানান।

এসএএম