টিকা নিতে কেন দেরি করলেন শাবনূর

টিকা নিতে কেন দেরি করলেন শাবনূর

বিনোদন ডেস্ক:: সপরিবার অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে থাকেন শাবনূর। অনেক আগে থেকেই সেখানে করোনার টিকা দেওয়া শুরু হলেও এত দিন নেননি। সিডনিতে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় মাসখানেক আগে বুকিং দিয়ে রেখেছিলেন। গতকাল জানতে পারেন, তাঁরা আজ রোববার করোনাভাইরাসের টিকা নিতে পারবেন। সকালে সিডনির রয়েল প্রিন্স আলফ্রেড হাসপাতালে মা, বোনসহ টিকা দিয়ে আসেন শাবনূর।

টিকা নিতে এত দেরি করলেন কেন, এই জিজ্ঞাসার জবাবে শাবনূর বলেন, ‘এমনিতেই আমার যেকোনো ধরনের ইনজেকশন নেওয়ার ব্যাপারে ভয় কাজ করে। ছয় মাস পরপর যখন ফুল বডি চেকআপ করতে যাই, রক্ত দেওয়ার সময় পাশে থাকা যে কেউ এটা ভালোভাবে টের পায়। করোনার টিকা নেওয়ার ব্যাপারেও একটা ভয় কাজ করেছিল। কিন্তু এখন যে অবস্থা, তাতে টিকা নেওয়া ছাড়া উপায় নেই। সিডনিতে সংক্রমণ মারাত্মকভাবে বেড়ে গেছে। মাস্ক ছাড়া বাসার বাইরে গেলে বড় অঙ্কের জরিমানাও গুনতে হয়। টিকা না নিলে দেশের বাইরে যাওয়ার ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা আছে। সবকিছু চিন্তা করে পরিবারের সবাই মিলে টিকা নিয়েছি।’

শাবনূর ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা ফাইজারের টিকা নিয়েছেন। টিকা নেওয়ার পর শরীরে হালকা জ্বর এসেছে বলে জানান তিনি। ১০ সপ্তাহ পর তাঁকে করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে বলে জানালেন শাবনূর।

শাবনূর এ–ও বললেন, ‘ইনজেকশন ফোবিয়ার কারণে আমি দেরিতে টিকা নিয়েছি। কাজটা মোটেও ঠিক হয়নি।’ সবাইকে টিকা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে শাবনূর বলেন, ‘ভয়ের কিছু নেই, চিন্তারও কোনো কারণ নেই। নিজেরা টিকা নিন, আশপাশের সবাইকে নিতে উদ্বুদ্ধ করুন। আপনি যেমন সুরক্ষিত থাকবেন, সুরক্ষিত থাকবে আপনার চারপাশও।’

নতুন কোনো চলচ্চিত্রের শুটিংয়ে শাবনূরকে দেখা যায়নি গত কয়েক বছর। এখন ঢাকা টু সিডনি আসা-যাওয়ার মধ্যেই আছেন। একমাত্র ছেলেকে মানুষ করে তোলার দিকেই বেশি মনোযোগী তিনি। তবে অভিনয়ে না থাকলেও শাবনূরকে নিয়ে আলোচনার কমতি নেই। শাবনূর জানান, কয়েক দফা দেশে আসার পরিকল্পনা করলেও শেষ মুহূর্তে বাতিল করতে হয়েছে। দুই দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তবেই ঢাকায় ফিরবেন। এসেই শুটিং শেষ না হওয়া কয়েকটি চলচ্চিত্রের কাজ শুরু করবেন। নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারেও কথা হচ্ছে। 

সিলেট প্রতিদিন/এমএনআই-০৪