দিনেদুপুরে ব্যস্ত রাস্তায় কোপানো হচ্ছে দম্পতিকে, ভিডিও করল জনতা

দিনেদুপুরে ব্যস্ত রাস্তায় কোপানো হচ্ছে দম্পতিকে, ভিডিও করল জনতা

প্রতিদিন ডেস্ক :  ব্যস্ত রাস্তা, ছুটে যাচ্ছে গাড়ি, বাস, বাইক। এমন সময় হঠাৎই উল্টোদিক দিয়ে আইনজীবী স্বামী-স্ত্রীর গাড়ির সামনে এসে দাঁড়ায় কালো রঙের একটি গাড়ি। সেখান থেকে দু'টি লোক বেরিয়ে  টেনে হিঁচড়ে নামায় স্বামী-স্ত্রীকে।

তারপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে একের পর এক কোপ বসাতে থাকে তাঁদের শরীরে। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে সকলের চোখের সামনে দিয়ে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে যান হামলাকারীরা। এরপর ছিন্নভিন্ন শরীর মাটিতে পড়ে রয়েছে। চাপচাপ রক্ত ভেসে যাচ্ছে রাস্তা দিয়ে। গাড়ি থেকে ঝুলছে স্ত্রীর শরীর। 
ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজ বলছে, চারপাশে থমকে দাড়িয়ে রয়েছে বাস গাড়ি। উঁকি দিয়ে দেখছেন পথচারীরা। তাঁদের মধ্যেই একজন এই গোটা ঘটনার ভিডিও রেকর্ড করেছেন ফোনে। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় এই মুহূর্তে ভাইরাল। মর্মান্তিক সেই দৃশ্য। যা দেখে আঁতকে উঠছে ইন্টারনেট দুনিয়ায়। আর এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তেলেঙ্গানায়। 

ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই জানা গেছে, ওই দম্পতি নমপল্লী অপরাধ আদালতের আইনজীবী। স্বামীর নাম গট্টু ভমন। স্ত্রীয়ের নাম নগামণি। জানা গেছে, মাটিতে রক্তাক্ত অবস্থায় ছটফট করার সময় হামলাকারীর নাম উল্লেখ করেছেন ভমন। 'কুন্তি শ্রীনিবাসে'র নাম শোনা গেছে তাঁর মুখে।

আইনজীবী দম্পতিকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে, তাদের মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

এরইমধ্যেই ১০ জনকে আটক করা হয়েছে ৷ মূল অভিযুক্তকে এখনও আটক করা হয়নি।  হামলার ঘটনায় ইতোমধ্যে তেলেঙ্গানা রাজ্যের আইনজীবীদের মধ্যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে। ফুঁসে উঠেছে আইনজীবীরা।

দ্রুত অভিযুক্তের শাস্তি দাবি করা হয়েছে ৷ বৃহস্পতিবার নমপল্লী অপরাধ আদালতের আইনজীবীরা কর্মবিরতির ডাক দিয়েছেন

সিলেট প্রতিদিন /টিআই