রেফারিকে তাড়া করে নিষিদ্ধ আবাহনীর সোহেল-টুটুলরা

রেফারিকে তাড়া করে নিষিদ্ধ আবাহনীর সোহেল-টুটুলরা

ক্রীড়া ডেস্ক : সদ্যশেষ হওয়া ফেডারেশন কাপের সেমিফাইনালে সিদ্ধান্ত মনের মতো না হওয়ায় রেফারির দিকে তেড়ে যান আবাহনীর ফুটবলার সোহেল রানা, টুটুল হোসেন ও সাদ উদ্দিনরা।

ফেডারেশন কাপে ঘটে যাওয়া এমনসব অনাকাঙ্খিত ঘটনায় দায়ীদের নিষিদ্ধ এবং জরিমানা করেছে বাফুফের শৃঙ্খলা কমিটি। 

গত ৭ জানুয়ারি বসুন্ধরা-আবাহনী সেমিফাইনালের ঘটনায় আবাহনীর সোহেল রানাকে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ এবং ৭৫ হাজার টাকা, টুটুল হোসেন বাদশাকে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ ও ৫০ হাজার টাকা, সাদ উদ্দিনকে ২৫ হাজার টাকা, ফিটনেস ট্রেইনার কাজী নজরুল ইসলামকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে না যাওয়ায় আবাহনীর কোচ মারিও লেমোসকেও ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। শেখ রাসেল ও চট্টগ্রাম আবাহনীর ম্যাচে অখেলোয়াড় সুলভ আচরণ করায় শেখ রাসেলের তকলিচ আহমেদকে দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে ম্যাচে মোহামেডান সমর্থকদের মাঠে প্রবেশ ও রেফারিকে গালিগালাজ এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়ায় শৃঙ্খলা কমিটি ক্লাবকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। এছাড়া আরও কয়েকটি ক্লাবের খেলোয়াড়, কর্মকর্তা ও বলবয়কে জরিমানাসহ নিষিদ্ধ করা হয়। 

জরিমানার অর্থ ১০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) তহবিলে জমা দিতে বলা হয়েছে। অর্থদন্ড থেকে বাফুফের তহবিলে জমা হবে দুই লাখ ৮৮ হাজার টাকা।

সিলেট প্রতিদিন/টিআই