শ্রীমঙ্গলে সুদখোরের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন স্বামী-স্ত্রী

শ্রীমঙ্গলে সুদখোরের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন স্বামী-স্ত্রী

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে সুদের টাকা না দেয়ায় এক নারীর হাতে নির্যাতনের শিকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার ভাড়াটিয়া হাবিব খান ও তার স্ত্রী। এ বিষয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

জানা যায়, গত ৭ জানুয়ারি রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে সুদের টাকা পরিশোধ না করায় উপজেলার সুরভীপাড়া এলাকার জামাল মিয়ার স্ত্রী রিনা বেগম (৪৫) হাবিব খানের বাসায় গিয়ে হাবিব খান ও তার স্ত্রীকে মারপিট করে। টাকা না দিলে নারী নির্যাতন মামলাসহ হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

হাবিব খান জানান, গত একবছর পূর্বে অভাবে পরে ৫ হাজার টাকা হাওলাদ নিয়ে ছিলাম রিনা বেগমের কাছ থেকে। তা সুদে আসলে ১২ হাজার টাকা দিয়েছি। কিন্তু প্রতি মাস শেষ হওয়ার আগেই রিনা বেগম আমাকে সুদের টাকা দেয়ার জন্যে ফোন করে চাপ দিতে থাকে। আমাকে রাস্তাঘাটে গালাগালি করে হুমকি দেয়। আমার কাছে সুদের ৩ মাসের টাকা পাবে বলে দাবী করে। পরে রাতে আমার বাসায় এসে দরজা ভাঙ্গে আমার বসতঘরে প্রবেশ করে কিছু না বলেই আমাকে ও আমার স্ত্রীকে এলোপাথারি লাঠি দিয়া মারধর করতে থাকে। তখন আমাদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে আমাদেরকে রিনা বেগম ও তার দলবল থেকে উদ্ধার করে। পরে টাকা না দিলে খুন করবে বলে হুমকি দিয়ে যায়।

তিনি জানান, এতে আমরা আমাদের নিজেদের জীবন বাঁচাতে পালিয়ে বেড়াচ্ছি। এখন আমরা আমাদের জীবনের নিরাপত্তা চাই। 

অভিযোগের বিষয়ে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের এস আই শামসুজ্জামান বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল তদন্ত করি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সিলেট প্রতিদিন/এমএ