শ্রীমঙ্গলে সরকারি হাসপাতালে অক্সিজেনের খালি সিলিন্ডার দিয়ে প্রতারণা

ডাক্তার- নার্সদের মনগড়া চিকিৎসা

শ্রীমঙ্গলে সরকারি হাসপাতালে অক্সিজেনের খালি সিলিন্ডার দিয়ে প্রতারণা

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি : শ্রীমঙ্গল উপজেলার গাজীপুর গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলামের মেয়ে সাম্মী আক্তার (১৮) অসুস্থ্য হয়ে শ্রীমঙ্গল হাসপাতালে ভর্তি হলে অক্সিজেনের খালি সিলিন্ডার দিয়ে চিকিৎসা দিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সিরাজুল ইসলাম মৃত্যুবরণ করেন। পিতার মৃত্যুতে তাঁর কন্যা সাম্মী আক্তার (১৮) সহ্য করতে না পেরে সারাদিন কাঁদতে কাঁদতে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পাশাপাশি তার শ্বাসকষ্টও দেখা দেয়। 

সন্ধ্যা ৭ টা ২০ দিকে সাম্মীকে শ্রীমঙ্গল সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে ভর্র্তি হওয়ার পর স্যালাইন ইনজেকশন দেওয়ার পাশাপাশি অক্সিজেনও লাগানো হয়। কিন্ত অক্সিজেনের বোতলটি ছিল খালি। অক্সিজেনের খালি বোতল দেখে সাম্মীর স্বজনরা কর্তব্যরত নার্সকে বিষয়টি অবহিত করলে কর্তব্যরত নার্স স্বজনদের জানান অক্সিজেনের বোতলটি খালি নয় এবং তাদের সাথে খারাপ আচরন করেন। 

তখন সাম্মীর স্বজনরা মেডিকেল অফিসার ডা. ছাদ এর শরনাপন্ন হলে ডা.ছাদ রোগীর রুমে এসে দেখেন অক্সিজেনের বোতলটি খালি। তিনি তখন নার্সদের কাছে জানতে চান খালি বোতল কেন লাগানো হয়েছে। 

নার্সরা ডাক্তারের কথার কোন উত্তর দিতে না পারায় ডা. ছাদ রোগীকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেন। 

মৌলভীবাজার নেওয়ার জন্য রোগীর স্বজনরা যখন হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স চাইলেন তখন নার্স মিসেস তাহমিনা জানান এ্যাম্বুলেন্সটি রোগী নিয়ে সিলেট গিয়েছে। কিন্ত নিয়ম অনুযায়ী শ্রীমঙ্গল উপজেলা হতে সরকারি এ্যাম্বুলেন্স জেলার বাইরে যাওয়ার বিধান নেই। এদিকে রোগীর অবস্থা আস্তে আস্তে আরো খারাপের দিকে যাওয়ায় রোগীর স্বজনরা প্রাইভেট ক্লিনিক হতে একটি এ্যাম্বুলেন্স নিয়ে হাসপাতাল হতে রোগীকে এ্যাম্বুলেন্সে তুলে অক্সিজেন লাগানোর সাথে সাথে রোগী অনেকটা সুস্থ্যতা বোধ করেছে। মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে রাতেই সিলেট রাগিব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এবিষয়ে শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন বিষয়টি দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সিলেট প্রতিদিন/এমএ্/এমএনআই-০১