শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৩:১৮ অপরাহ্ন


‘ক্লিন সুরমা ও গ্রীণ সিলেট ‘ স্বেচ্ছাসেবী কর্মীদের ৬শ’ ডলার অনুদান দিবেন ব্যারিস্টার সুমন

‘ক্লিন সুরমা ও গ্রীণ সিলেট ‘ স্বেচ্ছাসেবী কর্মীদের ৬শ’ ডলার অনুদান দিবেন ব্যারিস্টার সুমন

  • 2K
    Shares

মশাহিদ আলী :: সিলেট নগরীর প্রবেশদ্বার হিসেবে বলা হয় ঐতিহ্যবাহী ক্বীন ব্রিজকে।আর এই ব্রিজটি সুরমা নদীর উপর নির্মিত হয়েছে।

সিলেটের প্রাণকেন্দ্র জিন্দাবাজার যাওয়ার জন্যে বন্দর বাজারের সাথ সংযোগ করেছে এই ব্রিজ। ব্রিজের পাশেই সিলেট সার্কিট হাউজের অবস্থান। সার্কিট হাউজের সামনেই চাঁদনীঘাট যেখানে বিকেল বেলায় সূর্যস্থ দেখার জন্যে ও প্রকৃতির টানে নাদীর পাড়ে ভিড় করেন ছোট বড় দর্শনার্থীরা।

নদীর পাড় ঘেঁষে পায়ে হাঁটার রাস্তা। এখানেই ব্রিজের নিচের অংশে ময়লা আবর্জনা স্তুপ পড়ে আছে দীর্ঘ সময় ধরে। ময়লা পঁচে দূর্গন্ধ ছড়িয়ে পরিবেশ নষ্ট করছে। মানুষের চলাচলেও কষ্ট হয়। কিন্তু তা দেখার কেউ নেই। মানুষের চলার পথের দীর্ঘদিনের এই ভোগান্তি দূর করতে কাজ করছে ক্লিন সুরমা ও গ্রীণ সিলেট নামে দুটি সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। স্বেচ্ছাশ্রমে আবর্জনা পরিস্কার করে দুই সংগঠনের কর্মীরা।

শুক্রবার সন্ধায় স্বেচ্ছাসেবী ওই দুই সংগঠনের কর্মীদের নিয়ে লাইভে আসেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। এসময় স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশংসা করেন এবং উৎসাহ উদ্দীপনা দেন এবং পরামর্শ দেন তিনি।

তিনি বলেন, আমি নিজেও জানতাম না যে, ‘ক্লিন সুরমা আর গ্রীণ সিলেট’ তোমরা এতো শক্তিশালী। আমি ভাবতাম যে আমিই মনে হয় ভালো কাজ করি, অন্যরা মনে হয় কম করে। কিন্তু আমি যাই করি না কেন তোমাদের চেয়ে বেশি করি না। এই বয়সে তোমরা যা করে দেখালে আমাকে অন্তত ফেল করিয়ে দিয়েছ তোমরা।

এসময় ‘ক্লিন সুরমা ও গ্রীণ সিলেট ‘ স্বেচ্ছাসেবী কর্মীদেরকে ৬০০ ডলার অনুদান দেওয়ার ঘোষণা দেন।

ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেন, আগামী সপ্তাহে মা ও বোনকে দেখতে আমেরিকা যাবো। সেখানে গিয়ে যাতে খরচ করতে পারি সে জন্য ৬০০ ডলার জমা করেছিলাম। কিন্তু তোমাদেরকে দেখে সিদ্ধান্ত নিলাম আমেরিকা গিয়ে তো চলেই আসবো; এই ৬০০ ডলার তোমাদেরকে দিয়ে দিবো।

এসময় তাদের ঐক্যবদ্ধ কাজের প্রশংসা করে তিনি বলেন, একা একা বাঁচতে চাইলে কেউ বাঁচতে পারে না কিন্তু ঐক্যবদ্ধভাবে বাঁচতে চাইলে কেউ তাকে মারতে পারে না। তোমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবে। তোমরা যদি একত্রিত হও, সবাই মিলে মরার প্রস্তুতি নাও তাহলে কেউ মারতে পারবে না।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হকের উদ্দেশ্য করে বলেন আমি শুনেছি মেয়র সাহেব এই সংগঠনকে সহযোগিতা করছেন। আমি ওনাকে বলবো নদীর ঐ পাশের ময়লা যদি পরিষ্কার করে দেন তাহলে আমার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ওনাকে (মেয়র) শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানাই।

তিনি আরো বলেন, আমরা যারা রাজনৈতিকে নেতৃত্বে আছি তারা মানুষের সেবা ঠিকমতো দিতে পারি না। সামাজিক নেতা যারা গড়ে উঠতেছে তারা প্রকৃত অর্থে মানুষের বিশ্বাস নিয়ে সমাজের নেতৃৃত্ব দিবে।

সুমন বলেন, আগে মনে করতো আওয়ামী লীগের লোকজন দুর্নীতি করলে কোনো বিচার হয় না। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনা এই কয়দিন ধরে যতসব নেতারে বাড়িত পাঠাই দিছে; প্রমাণ করে দিয়েছেন দুর্নীতি করলে আওয়ামী লীগে, সরকারে কোনো টাউট বাটপারে জায়গা নাই।

এর আগে ব্যারিস্টার সুমন ‘ক্লিন সুরমা গ্রীণ সিলেট’ নিয়ে একটি ভিডিও রেকর্ড করেন এবং বলেন সমাজের সকল শ্রেণি পেশার লোকজন এগিয়ে আসলে আমরা একটি সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারবো তার জন্যে সবাই কাজ করতে হবে।এসময় উপস্থিত ছিলেন কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সারওয়ার হোসেনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃত্ববৃন্দ ।

দুপুরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ককের ওসমানী নগরের সাদীপুরে বৈদ্যুতিক খুঁটি রাখায় তিনি ফেসবুক লাইভে এসে বলেন, আমি মরে গেলে হায় হতাাশ ছাড়া কিছু থাকবে না। এসময় কয়েকজন যুবককে নিয়ে খুঁটি সরিয়ে দিয়েছেন । স্থানীয়দের উদ্দেশ্যে বলেন ওসমানীনগর নেতৃবৃন্দ প্রশাসনসহ পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন যাতে ভবিষ্যতে এমন কাণ্ডজ্ঞানহীন কাজ না করেন। কারণ এতে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় কোনো দুর্ঘটনা ।

সিলেট প্রতিদিন/এম/এ


  • 2K
    Shares




পুরানো সংবাদ

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  


© All rights reserved © 2017 sylhetprotidin.com