সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫০ অপরাহ্ন


মিথিলা আসলে কার, প্রশ্ন জনমনে

মিথিলা আসলে কার, প্রশ্ন জনমনে


বিনোদন ডেস্ক :: নির্মাতা ও পরিচালক ইফতেখার আহমেদ ফাহমির সঙ্গে অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলার অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

সোমবার (৪ নভেম্বর) টেক বিনোদন নামে ফেসবুক গ্রুপে দুটি ছবি পোস্ট করা হয়। পরে সেখান থেকে ছবিগুলো ভাইরাল হয়।

ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশের পর মিডিয়ায় তোলপাড় শুরু হয়। মিথিলা আসলে কার এ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ভক্ত ও সমালোচকদের মনে। কারণ বিভিন্ন সময় অভিনেত্রীকে নিয়ে নানা রকম গুঞ্জন শোনা যায়। আর এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথিলাকে চর্চা হচ্ছে। তারা প্রশ্ন তুলেছেন মিথিলা আসলে কার?

কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে তাকে নিয়ে এখনও বেশ আলোচনা। তাদের দু’জনকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা যায়। এছাড়া ভারতীয় গণমাধ্যমেও তাদের নিয়ে সংবাদও প্রকাশ হয়। তবে বরাবরই তারা একে অপরকে ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’ বলে দাবি করে আসছেন।

অন্যদিকে গেল সেপ্টেম্বর শোনা গিয়েছিল, তাহসানের সঙ্গে মিথিলার পুরনো প্রেম জেগে উঠেছে। তারা দু’জনে একমাত্র মেয়ে আয়রানকে নিয়ে একসঙ্গে ঘুরেছেন। ইনস্টাগ্রামে মেয়ের সঙ্গে আলাদা ছবিও শেয়ার করেন। এ নিয়ে ভক্তরা ভেবেছিলেন তাদের পুরানো প্রেম হয়তো আবারও জোড়া লাগতে যাচ্ছে। এমনই ধারণা ছিল ভক্ত ও সমালোচকদের। কিন্তু নতুন ভাইরাল হওয়া ছবি সব ওলট-পলট করে দিল। অপেক্ষা এখন নতুন খবরের।
এর আগে গত বছরে জন কবিরের সঙ্গে একটি ছবি নিয়েও সমালোচনার মুখে পড়েন মিথিলা।

ফাহমির সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবির বিষয়ে জানতে চাইলে মিথিলার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘অস্বাভাবিক কোনো ছবি না এটা’। এই কথা বলেই ফোনটি কেটে দেন তিনি।

এদিকে ফাহমির সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্ঠা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সংগীতশিল্পী তাহসান খান ও মডেল-অভিনেত্রী মিথিলা ছিলেন বিনোদন জগতের অনেক তারকার কাছে আদর্শ দম্পতি। ২০১৭ সালের ২০ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে দুই তারকার বিচ্ছেদের ঘোষণা দেওয়ার পর অনেকেই হতাশ হন।

তাহসান-মিথিলার বিয়ে হয় ২০০৬ সালের ৬ আগস্ট। তবে সংসারে একসময় অশান্তি দেখা দেয়। ২০১৫ সালের দিকে আলাদা থাকতে শুরু করেন তারা। তাদের ঘরে একমাত্র মেয়ে আয়রান।

 

সিলেট প্রতিদিন/এম/এ





পুরানো সংবাদ

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  


© All rights reserved © 2017 sylhetprotidin.com