সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ন


ছাতকে পৃথক অপহরণ ও ধর্ষণ: দু’যুবক জেল-হাজতে

ছাতকে পৃথক অপহরণ ও ধর্ষণ: দু’যুবক জেল-হাজতে

  • 4
    Shares

ছাতক প্রতিনিধি:: ছাতকে অপহরণ ও ধর্ষণের পৃথক ঘটনায় দু’যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। শহরের মন্ডলীভোগ আবাসিক এলাকায় বসবাসরত (হিন্দু ধর্মালম্বি) দশম শ্রেনীর জনৈক এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগে কামরান আহমদ (২৩) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেফতার হওয়া কামরান সিলেট জেলার জালালাবাদ থানার নতুন খুররম খোলা গ্রামের মৃত জাফর আলীর ছেলে।

একই সময়ে উদ্ধার করা হয়েছে অপহৃত ওই স্কুল ছাত্রীকে। সোমবার দুপুরে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ধর্ষিত ওই স্কুল ছাত্রীকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত রোববার মধ্যরাতে থানার উপ-পরিদর্শক মো.দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে ছাতক ও জালালাবাদ থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারী কামরানকে আটক করা হয়। সোমবার সকালে এ ঘটনায় অপহৃত স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে কামরানকে আসামী করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। একই দিন দুপুরে তাকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সুনামগঞ্জ জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৩ সেপ্টেম্বর ওই স্কুল ছাত্রী বিদ্যালয়ে বাড়ী যাওয়ার কথা বলে ঘর থেকে বের হওয়ার পর আর বাড়ী ফিরেনি। এ ঘটনার দু’দিন পর গত ২৫ সেপ্টেম্বর ওই স্কুল ছাত্রীর বাবা থানায় একটি সাধারন ডায়রী করা হয়।

এদিকে, জনৈক এক কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষনের অভিযোগে গত রোববার রাতে নিজ বাড়ী থেকে দবির মিয়া (৩০) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশ। সে উপজেলার ভাতগাঁও ইউনিয়নের জিগলী গ্রামের মৃত জাবেদ উল্লাহর ছেলে। আটক দবির মিয়ার বিরুদ্ধে রোববার রাতে থানায় একটি মামলা দায়েরে পর গতকাল সোমবার দুপুরে ওই মামলায় দবির মিয়াকে গ্রেফতার দেখিয়ে সুনামগঞ্জ জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৬ অক্টোবর রাতে জিগলী গ্রামের জনৈক এক কিশোরীর ঘরে ডুকে একই গ্রামের প্রতিবেশী দবির মিয়া জোরপূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে ওই কিশোরীর পরিবারের লোকজন তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনার পর বিষয়টি ধামাপাঁপা দেয়ার চেষ্টা করে দবির মিয়ার পরিবারের লোকজন। হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ধর্ষিতা ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে গত রোববার রাতে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

সিলেটপ্রতিদিন/এসএ


  • 4
    Shares




পুরানো সংবাদ

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  


© All rights reserved © 2017 sylhetprotidin.com