বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৬:১৬ পূর্বাহ্ন


ফেসবুকের কাছে ১২৩ জনের তথ্য চেয়েছে সরকার

ফেসবুকের কাছে ১২৩ জনের তথ্য চেয়েছে সরকার


প্রতিদিন ডেস্ক : ফেসবুকের কাছে ব্যবহারকারীদের তথ্য চেয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকারের করা আবেদন অতীতের তুলনায় কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের জায়ান্ট এই প্রতিষ্ঠান বলছে, গত বছরের শেষ ছয় মাসের তুলনায় চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে সরকারিভাবে তথ্য চাওয়ার আবেদন বেড়েছে প্রায় ১৬ গুণ।

শুক্রবার বিশ্বের শীর্ষ এই মার্কিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম তাদের এক ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত বাংলাদেশ সরকার ফেসবুকের কাছে ১২৩ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে অনুরোধ করেছে। মোট ৯৫ বার অনুরোধ জানিয়ে এসব অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে আইনি প্রক্রিয়ার অনুরোধ রয়েছে ১৫টি; জরুরি অনুরোধ ৮০টি। বাংলাদেশ সরকারের এসব অনুরোধের ৪৭ শতাংশের সাড়া দিয়েছে ফেসবুক।

এর মধ্যে জরুরি অনুরোধের ৪৮ শতাংশ এবং আইনি প্রক্রিয়ার অনুরোধের ২০ শতাংশের তথ্য বাংলাদেশকে সরকারকে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে জনপ্রিয় এই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।

অন্যদিকে, গত বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ফেসবুকের কাছে অন্তত ১৯৫ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে অনুরোধ জানিয়েছিল বাংলাদেশ সরকার। মোট ১৪৯ বার ফেসবুকের কাছে অনুরোধ জানিয়ে এসব অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়। ফেসবুক বলছে, গত বছরের শেষার্ধে বাংলাদেশ সরকার ১৯ বার আইনি প্রক্রিয়ার এবং ১৩০ বার জরুরি অনুরোধ জানিয়ে এসব অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছিল।

তবে চলতি বছর ফেসবুকের কাছে তথ্য চাওয়ার রেকর্ড গড়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি এ বছরের প্রথম ছয় মাসে ফেসবুকের কাছে ৫০ হাজার ৭১৪ জন ব্যবহারীর তথ্য চেয়েছে। একই সঙ্গে এই তথ্য চাওয়ার বিষয়টি যাতে ব্যবহারকারীকে না জানানো হয় সে ব্যাপারে নির্দেশও দেয়া হয়।

ফেসবুকের কাছে তথ্য চাওয়ার এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। চলতি বছরের প্রথমার্ধে ২২ হাজার ৬৮৪ জনের তথ্য চেয়ে অনুরোধ জানিয়েছে দেশটির সরকার। গত বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ২০ হাজার ৮০৫ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়েছিল ভারত।

সিলেট প্রতিদিন/এমজে





পুরানো সংবাদ

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  


© All rights reserved © 2017 sylhetprotidin.com